মাদারবোর্ড এর কাজ কি?

মাদারবোর্ড কি? মাদারবোর্ড এর কাজ কি?

আপনি কি মাদারবোর্ড সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন? হুমম!!! আমি আপনার মতো একজন মানুষকে খুজছি। যে মানুষটা একান্তভাবে মাদারবোর্ড কি, সে সম্পর্কে জানতে চায়। আর যেহুতু আপনি আমার ওয়েবসাইট চলে এসেছেন। সেহুতু আপনার কোন টেনশন করার দরকার নেই। কারন আজকে আমি Motherboard এর আদি থেকে অন্ত পর্যন্ত যে সমস্ত খুটিনাটি বিষয় আছে, তার সবগুলোকে স্টেপ বাই স্টেপ আলোচনা করবো। 

প্রযক্তির এই যুগের সাথে তাল মেলানোর জন্য কম্পিউটার এর গুরুত্ব অপরিসীম। আর কোন একটি Computer এর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ হলো মাদারবোর্ড। সত্যি বলতে Motherboard ছাড়া কম্পিউটার এটা কল্পনা করা যায়না। আর এই মাদারবোর্ড নিয়েই আজকে আমরা আলোচনা করবো। তো যদি আপনি জানতে চান যে, মাদারবোর্ড কি এবং মাদারবোর্ড এর কাজ কি। তাহলে আজকের পুরো লেখাটি মন দিয়ে পড়বেন। 

মাদারবোর্ড কি?

আমাদের ব্যবহার করা প্রতিটা কম্পিউটার এর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশের নাম হলো মাদারবোর্ড। কেননা, এই কম্পিউটার গুলোর মধ্যে এক ধরনের Cabinet এর বোর্ড লাগানো থাকে। যে বোর্ডে Computer এর বাকি হার্ডওয়্যার গুলোকে সংযুক্ত করা হয়। যেমন, CPU, RAM, HDD, Monitor, BIOS, CMOS, USB ইত্যাদি। 

আর এতগুলো হার্ডওয়্যার এবং কম্পোনেন্ট কে একসাথে একটি Cabinet বোর্ডের মধ্যে সংযুক্ত করা হয়েছে বলে এই বোর্ডটিকে বলা হয় মাদারবোর্ড। যাকে একটি কম্পিউটার এর মা হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। কেননা, এই সবগুলো কে Dedicated Ports এর সাহায্য Computer Cabinet বোর্ড এর সাথে সংযুক্ত করা হয়ে থাকে। 

মাদারবোর্ড এর ইতিহাস

বর্তমানে আমরা যেটা মাদারবোর্ড হিসেবে চিনি, অতীতের দিনে কিন্তুু এর নাম ছিলো প্লানার (Planner). যার নামকরন করেছেন আইবিএম (IBM) নামক একটি কোম্পানি। ১৯৮১ সালে এই আইবিএম কোম্পানি সর্বপ্রথম কম্পিউটার জগতের মাদারবোর্ড সৃষ্টি করেছিলো। তবে মজার বিষয় হলো, মাদারবোর্ড এর আরো অনেক নাম আছে। যেমন, প্ল্যানার বোর্ড, লজিক বোর্ড, এমবি, বেস বোর্ড, মোবো ইত্যাদি। এই নাম গুলো একেক সময় ব্যবহার করা হতো। 

মাদারবোর্ড এর কাজ কি?

উপরের আলোচনা থেকে “মাদারবোর্ড কি”- সে সম্পর্কে ক্লিয়ার ধারণা পেয়ে গেছেন। তো এটি জানার পর আপনাকে আরো একটি বিষয়ে জানতে হবে। সেটি হলো মাদারবোর্ড এর কাজ কি। চলুন এবার সে নিয়ে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

  • কোন একটি মাদারবোর্ডে যতগুলো ডিভাইস সংযুক্ত থাকে, সেগুলো পরিচালনা করার জন্য পাওয়ার (Power) এর প্রয়োজন হয়ে থাকে। আর এই পাওয়ার গুলো মূলত মাদারবোর্ড থেকে সাপ্লাই দেয়া হয়ে থাকে। 
  • একটি কম্পিউটার কে সঠিকভাবে পরিচালনা করার জন্য Computer Cabinet এ যেসব ডিভাইস যুক্ত করা থাকে, তার সবগুলোকে ম্যানেজমেন্ট থেকে শুরু করে কমিউনিকেট পর্যন্ত এর প্রায় সবগুলো কাজ করে মাদারবোর্ড। 
  • মাদারবোর্ড মূলত একটি ডিভাইসের সাথে অন্য কোনো ডিভাইসের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন করার কাজটি করে থাকে। 
  • হয়তবা আপনার জানা থাকবে যে, একটি কম্পিউটার চালু হওয়ার ক্ষেএে Bios এর ভূমিকা অপরিসীম। আর এই Bios Setting এর কাজটিও কিন্তুু মাদারবোর্ড করে থাকে। 
  • কোনো একটি কম্পিউটার কে সচল রাখতে কোন চীপ কোথায় রাখা উচিত সেটিও কিন্তুু মাদারবোর্ড নির্ধারন করে দেয়। 

সত্যি বলতে মাদারবোর্ড এর কাজ কি সেটি আসলে লিখে শেষ করা যাবেনা। কেননা, আমি শুরুতেই বলেছি যে এটি ছাড়া একটি কম্পিউটার কে কল্পনা করাই অসম্ভব। তবে আমি শুধু চেষ্টা করেছি, মাদারবোর্ড এর মূল কাজ গুলোকে তুলে ধরার। 

মোবাইল, ল্যাপটপ, ট্যাবলেটে মাদারবোর্ড থাকে? 

কিন্তুু এসব ইলেকট্রনিকস পণ্যের মধ্যে যেসব মাদারবোর্ড থাকে সেগুলোকে সহজ ভাষায় বলা হয় লজিক বোর্ড। আর এসব লজিক বোর্ড গুলোর কাজের দিক থেকেও বেশ মিল আছে। কিন্তুু একটি কম্পিউটার ডিভাইসের মাদারবোর্ডে যতগুলো কম্পোনেন্ট যুক্ত করা থাকে। ততগুলো কম্পনেন্ট মোবাইল বা ল্যাপটপ এর লজিক বোর্ডে থাকেনা।  

মাদারবোর্ড নিয়ে আমাদের শেষকথা 

আজকের পুরো লেখার মধ্যে মাদারবোর্ড কি এবং মাদারবোর্ড এর কাজ কি। সে সম্পর্কে স্টেপ বাই স্টেপ আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি আজকের Motherboard নিয়ে আলোচিত বিষয়গুলো বেশ ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন। তবে এরপরও যদি আপনার মনে মাদারবোর্ড নিয়ে কোনো জানার থাকে। তাহলে নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। 

আর এমন সব অজানা তথ্য বিনামূল্যে জানতে চাইলে আমাদের সাথে থাকবেন। ধন্যবাদ। 

Share

Leave a Reply