মোবাইল দিয়ে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

মোবাইল দিয়ে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

বর্তমানে বাংলাদেশে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক কিছু কোম্পানি মোবাইল ব্যাংকিং সুবিধা প্রদান করে চলেছে। তাদের মধ্যে ডাচ বাংলা ব্যাংক হচ্ছে অন্যতম জনপ্রিয় একটি মোবাইল ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান। রকেট ডাচ বাংলা ব্যাংকের অত্যাধুনিক একটি মোবাইল ব্যাংকিং সেবা।

রকেটে এর মাধ্যমে ঘরে বসে যে কোনো সময় টাকা লেনদেন করা যায়। যে কারণে রকেটের প্রয়োজনীয়তা এবং জনপ্রিয়তা প্রতিনিয়ত অত্যন্ত দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে। রকেটে টাকা লেনদেন করার জন্য প্রয়োজন একটি রকেট অ্যাকাউন্ট এর। কিন্তু আমরা অনেকেই হয়তো জানি না কিভাবে রকেট অ্যাকাউন্ট খুলতে হয়। তাই আজকের আর্টিকেলটিতে আমি আলোচনা করতে চলেছি রকেট অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে। 

রকেট একাউন্ট 

প্রধানত তিনটি উপায়ে একটি রকেট (Rocket) অ্যাকাউন্ট খোলা যায়। সেগুলো হলো:

  • মোবাইল কোড (*৩২২#) ডায়াল করে অথবা রকেট মোবাইল অ্যাপ এর সাহায্যে।
  • রকেট কাস্টমার সার্ভিস পয়েন্ট থেকে।
  • রকেট এজেন্ট পয়েন্ট থেকে।

এই তিনটি উপায়ের মধ্যে আপনার পছন্দ অনুযায়ী যেকোনো একটি দিয়েই রকেট অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন। এ পর্যায়ে রকেট অ্যাকাউন্ট খোলার এই তিনটি উপায়ের প্রত্যেকটি ধারাবাহিকভাবে বিস্তারিত বর্ণনা করব। যাতে করে আপনি সহজেই একটি রকেট অ্যাকাউন্ট খুলে নিতে পারেন। 

মোবাইল কোড দিয়ে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

রকেট অ্যাকাউন্ট খোলার সবচেয়ে সহজ উপায়টি হলো মোবাইল কোড। এর জন্য কোনো এন্ড্রয়েড (Android) মোবাইল ফোন বা আইডি কার্ড এর প্রয়োজন নেই। যেকোনো বাটন ফোন দিয়েও আপনি অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন।

মোবাইল কোড দিয়ে রকেট অ্যাকাউন্ট খুলতে আপনাকে যা করতে হবে:

  • প্রথমে আপনার মোবাইলের ডায়াল প্যাড থেকে *৩২২# ডায়াল করুন।
  • এরপর আপনার সামনে একটি অপশন আসবে। সেখানে ১ লিখে রিপ্লাই প্রদান করুন।
  • এবার OK অপশনটি সিলেক্ট করুন।
  • এখন ৪ ডিজিটের আপনার পছন্দসই একটি পিন নাম্বার সেট করুন।
  • এ পর্যায়ে আপনার ফোন নাম্বারে অ্যাকাউন্ট চেক কোড সহ আপনার ১২ ডিজিটের রকেট নাম্বারটি SMS এর মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে।

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

তো ইতিমধ্যে আপনার রকেট অ্যাকাউন্ট খোলা শেষ। এখন যেকোনো প্রয়োজনে এই অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে আপনি টাকা লেনদেন করতে পারবেন।

রকেট মোবাইল অ্যাপ দিয়ে একাউন্ট খোলার নিয়ম 

আপনার যদি একটি এন্ড্রয়েড হ্যান্ড সেট থেকে থাকে এবং আপনার রকেট অ্যাকাউন্টটি আরও Smartly ব্যবহার করতে চান তবে রকেট মোবাইল অ্যাপ দিয়েও অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। তাও খুবই সহজ কয়েকটি স্টেপ অনুসরন করে। 

  • প্রথমে আপনার মোবাইলের প্লে স্টোর থেকে রকেট মোবাইল অ্যাপটি ডাউনলোড করুন।
  • এরপর অ্যাপটি Install করে নিন।
  • এবার অ্যাপটি Open করুন। অ্যাপ ওপেন করলে প্রথমে আপনাকে ভাষা সিলেক্ট করতে বলা হবে। বাংলা অথবা ইংরেজি , আপনার পছন্দ অনুযায়ী যে কোন একটি Language সিলেক্ট করে নিতে পারেন।
  • এর পরের ধাপে আপনাকে আপনার মোবাইল নাম্বারটি দিতে হবে। মনে রাখবেন, আপনি যেই নাম্বারটি এখানে ব্যবহার করবেন সেই নাম্বার বা সিম টি অবশ্যই আপনার এই মোবাইলে একটিভ থাকতে হবে। অর্থাৎ যেটি দিয়ে আপনি অ্যাকাউন্ট খুলছেন।
  • এখন পরবর্তী (Next) বাটনে ক্লিক করুন।
  • এবার আপনার নাম্বারে একটি Call আসবে। কলটি রিসিভ করুন। এখানে বলা হবে যে, রকেটে আপনার একটি অ্যাকাউন্ট খোলা হচ্ছে। অ্যাকাউন্ট খুলতে চাইলে 4 ডিজিটের একটি পিন সেট করুন অথবা না চাইলে কলটি কেটে দিন।
  • সুতরাং আপনার নিজের মত করে ৪ সংখ্যার একটি পিন কোড দিয়ে দিন।
  • এখন ৬ সংখ্যার একটি Security Code SMS এর মাধ্যমে আপনার কাছে পাঠানো হবে।
  • এখন এসএমএস চেক করে সেই সিকিউরিটি কোডটি সেট করুন। এরপর কোডটি পুনরায় চেক করুন এবং Next বাটনে ক্লিক করে পরবর্তী ধাপে প্রবেশ করুন।
  • এবার আপনার অ্যাকাউন্টটি ভেরিফাই করার জন্য আরও তিনটি ধাপের মধ্য দিয়ে আপনাকে যেতে হবে। প্রথমে আপনার NID কার্ড অর্থাৎ জাতীয় পরিচয় পত্রের উভয় পাশের ছবি তুলুন।
  • NID কার্ডের ছবি তোলা হলে এবার আপনার NID কার্ডের তথ্য গুলো দেখাবে যে সব ঠিক আছে কিনা।
  • এরপরের স্টেপে আপনাকে একটি ছবি তুলতে বলা হবে। মনে রাখবেন ছবিটি শুধুমাত্র আপনার NID কার্ডের সঙ্গে Match করানোর জন্য। সুতরাং অনতিবিলম্বে ছবিটি তুলে ফেলুন।
  • ছবিটি Match হয়ে গেলেই আপনার অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই হয়ে যাবে এবং আপনার নাম্বারে একটি Confirmation ম্যাসেজ পাঠানো হবে। তাহলেই ব্যাস হয়ে গেলো মোবাইল অ্যাপ থেকে রকেট অ্যাকাউন্ট খোলা।

রকেট এজেন্ট পয়েন্ট থেকে একাউন্ট খোলার নিয়ম

বন্ধুরা আমরা এতক্ষণ মোবাইলে রকেট অ্যাকাউন্ট খোলার নিয়ম সম্পর্কে আলোচনা করেছি। যেগুলো আপনি সঠিকভাবে বুঝে থাকলে ঘরে বসেই একটি অ্যাকাউন্ট খুলে নিতে পারবেন।

কিন্তু আপনি যদি নিজে নিজে একটি রকেট অ্যাকাউন্ট খুলতে ব্যর্থ হন তবে হতাশ হবারো কিছু নেই। রকেট এজেন্ট পয়েন্ট অথবা কাস্টমার কেয়ার অফিস থেকেও আপনি একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিতে পারবেন।

কিন্তু এর জন্য কিছুটা খাটাখাটনির প্রয়োজন হয় এবং ঝামেলায় পড়তে হয়। যেমন- ঘর থেকে বেড়িয়ে অফিসে যাওয়া এবং অজস্র সময় ব্যয় করা ছাড়াও প্রয়োজন হবে-

  • NID কার্ডের ফটোকপি
  • এক কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি এবং
  • আঙুলের টিপ সই।

সুতরাং বুঝতেই পারছেন এক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাকে কিছুটা ঝামেলা পোহাতে হবে। এছাড়াও একটি অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য প্রথমে আপনাকে একটি ফর্ম পূরণ করতে হবে। এরপর আপনার আঙুলের ছাপ এবং স্বাক্ষর দিয়ে ফর্মটি জমা দিতে হবে। 

এরপর ফর্মটি জমা দেওয়া হলে ৩-৫ কার্যদিবসের মধ্যে আপনার অ্যাকাউন্টটি সচল করে দেয়া হবে। অ্যাকাউন্ট সচল হলে আপনার নাম্বারে একটি কনফার্মমেশন ম্যাসেজ দিয়ে দেয়া হবে।

রকেট একাউন্ট দেখার নিয়ম

আমরা যারা রকেট একাউন্ট ব্যবহার করি তাদের মধ্যে অনেকেই হয়তো রকেট একাউন্ট দেখার নিয়ম সম্পর্কে জানিনা। কিন্তু এটি জানা খুবই জরুরি। এর ফলে যেকোন সময় প্রয়োজনে আপনি ব্যালেন্স চেক করতে পারবেন।

রকেট অ্যাকাউন্ট থেকে ব্যালেন্স চেক করার জন্য দুটি উপায় রয়েছে।

  • রকেট মোবাইল কোডের ব্যবহার।
  • রকেট মোবাইল অ্যাপ।

তবে রকেট মোবাইল অ্যাপের চাইতে আমি রকেট মোবাইল কোডের ব্যবহারকেই আমি প্রাধান্য দিব। কেননা রকেট অ্যাপ ব্যবহার করতে চাইলে আপনার সবসময় ইন্টারনেট কানেকশন সংযুক্ত থাকতে হবে। কিন্তু অনেক সময় দেখা যায় ইন্টারনেট সংযোগ পাওয়া যায় না। যার ফলে একাউন্ট দেখা বা চেক করাও সম্ভব হয় না।

কিন্তু রকেট মোবাইল কোড ব্যবহার করলে এরূপ কোনো সমস্যার সম্ভাবনা নেই। 

রকেট মোবাইল কোড থেকে অ্যাকাউন্ট দেখতে হলে প্রথমে *৩২২# কোডটি ডায়াল করুন। এরপর ৫ নাম্বার অপশনে MY ACC/মাই একাউন্ট নামে একটি অপশন দেখতে পাবেন। অপশনটি সিলেক্ট করুন।

মাই একাউন্ট অপশনটি সিলেক্ট করা হলে পরবর্তী ধাপে আপনি আরও কয়েকটি অপশন দেখতে পাবেন। সেখান থেকে আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী যেকোন কিছু চেক করতে পারবেন। যেমন- ব্যালেন্স চেক, একাউন্ট নাম্বার চেক ইত্যাদি।

এখন আপনি যেই অপশনটি চেক করতে চাইবেন সেটি সিলেক্ট করে পিন কোড দিয়ে দিন। ব্যাস তাহলেই হয়ে গেল আপনার রকেট একাউন্ট চেক করা।

যেমন- আপনি যদি ব্যালেন্স চেক করতে চান তবে My Account থেকে থেকে পরবর্তী ধাপে Check Balance অপশনটি সিলেক্ট করুন। এটি আপনি ১ নাম্বার অপশনেই পেয়ে যাবেন। এরপর আপনার রকেট পিন কোড টি দিয়ে দিন। তাহলেই আপনি আপনার ব্যালেন্সে কত টাকা আছে সেটি দেখতে পাবেন।

প্রিয় পাঠকবৃন্দ! আমরা ইতিমধ্যে আর্টিকেলের প্রায় শেষ পর্যায়ে চলে এসেছি। এতক্ষণ আমি আলোচনা করার চেষ্টা করেছি রকেট একাউন্ট এবং এর অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো সম্পর্কে। আশা করছি আর্টিকেলটি আপনারদের উপকারে আসবে।

Leave a Reply