ফ্রিল্যান্সিং গল্প

ফ্রিল্যান্সার থেকে উদ্যোক্তা – মিজানুর রহমানের সফলতার গল্প

ফ্রিল্যান্সিং গল্প

সংক্ষেপে আপনার পরিচয় দিন

আমি মোঃ মিজানুর রহমান । সরকারি আজিজুল হক কলেজ থেকে প্রাণিবিদ্যায় স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেছি। বর্তমানে আইটি উদ্যোক্তা হিসেবে নিজের প্রতিষ্ঠান Foxous কে নিয়ে কাজ করছি। 

অনলাইন সম্পর্কে কিভাবে জানতে পারলেন?

সালটা সঠিক মনে নেই, তবে ২০১০ বা ২০১১ এর দিকে প্রথম আলোতে তখন মাসব্যাপী একটা নিউজ  ছাপা হয়েছিল, ঐ সময়ই ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে জানতে পারি। তখন এত ধারণা ছিলনা, শুধু জানতাম অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করা যায়। ধীরে ধীরে এর প্রতি  আমার আগ্রহ বাড়তে থাকে।

ব্যাক্তিগত জীবনে ভ্রমণ করতে প্রচুর ভালোবাসে – হামতা পাস এ ভ্রমণীয় মুহূর্ত

কোথায় থেকে কাজ শিখলেন?

এটা আমার সৌভাগ্য বলা চলে, আমার ঘনিষ্ঠ দুই বন্ধু তখন odesk বর্তমানে upwork এ কাজ করতো, তাদের কাছেই আমার হাতে খড়ি, আমি ওদের কাজ করে দিতাম। তারপর একসময় নিজের প্রোফাইল তৈরি করে নিজেই কাজ নেওয়ার চেষ্টা করতে থাকি। 

এখানেও সৌভাগ্যবশত আমি খুব দ্রুত একটা কাজ পেয়ে যাই, যা একটা SEO AGENCY ছিল, যাদের সাথে কাজ করতে করতে আমি দ্রুত স্কিল ডেভেলোপ করতে থাকি, এরপর আর আমাকে পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

কাজ করতে গিয়ে কি কি বাধার সম্মুখীন হয়েছেন?

সেই সময় আমরা যারা কাজ শুরু করেছি সবাই আসলে এর ভুক্তভুগি, প্রথমত ইন্টারনেট কানেকশন এতোই স্লও ছিল যেটা নতুন করে বলার অবকাশ রাখেনা। 

তারপর, পেমেন্ট মেথড প্রবলেম তখনও ছিল যেটা এখন কিছুটা হলেও সহজ হয়েছে। এর চেয়ে সব থেকে বড় প্রবলেম যেটা ছিল, স্কিল ডেভেলোপ করার জন্য অনলাইন রিসোর্স খুব কম ছিল। 

বর্তমানে কি নিয়ে কাজ করছেন?

বর্তমানে কাজ করছি  ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে।  আমার প্রতিষ্ঠান Foxous ৩য় বছরে পদার্পণ করলো। আমরা মূলত এসইও ও এসএমএম ভিত্তিক সার্ভিস গুলো প্রদান করে থাকি।  ইউএসএ  ভিত্তিক ২ টা মাল্টিন্যাশনাল মিডিয়া কোম্পানি সাথে আমাদের পার্টনারশীপ চুক্তি চলমান। এছাড়া কানাডা ভিত্তিক অ্যাড এজেন্সি কে আমরা ফুলটাইম এসএমএম সার্ভিস সাপোর্ট দিচ্ছি। 

পাশাপাশি গত ২ বছর যাবত আমরা অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট নিয়ে কাজ করছি, নীশ সাইট বিজনেস রিলেটেড সার্ভিসগুলো আমরা সফলতার সাথে প্রদান করে আসছি।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর ভবিষ্যত কি?

অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং মূলত একটা  পপুলার বিজনেস মডেল , কেউ যদি সঠিক পরিকল্পনা ও গাইড নিয়ে আগাতে থাকে, তাহলে অবশ্যই এখানে সাফল্য আসবেই। আমি আশা করি ভবিষ্যতে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং ইন্ডাস্ট্রি কয়েকগুণ হারে গ্রো করবে।

অফলাইনে কিছু করছেন?

আপাদত অফলাইনে কিছু করার ইচ্ছা নাই তাই করছিনা, তবে ভবিষ্যতে অনেক পরিকল্পনা আছে যদি সম্ভব হয় সেগুলো বাস্তবায়ন করবো।

বাইক নিয়ে ঘুরে বেড়ানো তার শখ – রোটাং পাস এ বাইকিং করার মুহূর্ত

আপনে কি নিজেকে সফল মনে করেন?

আসলে সফল কথাটা একেএক জনের কাছে এক এক রকম, আমরা আসলে কখনো সফল কিনা বলা মুশকিল, তবে আলহামদুলিল্লাহ আমি আমার অবস্থান থেকে ভালো আছি।

বর্তমানে আমার প্রতিষ্ঠানে ১২ জনের মতো কর্ম কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হয়েছে, ভবিষ্যতে এর পরিধি আশা করি আরো বাড়বে।

ভবিষ্যত পরিকল্পনা কি?

আমার প্রতিষ্ঠান  Foxous কে এমন একটা অবস্থানে নিয়ে যাওয়া, যেখান থেকে আমি কর্মসংস্থানের মাধ্যমে বাংলাদেশের বেকার সমস্যার সমধানে একটা ক্ষুদ্র আবদান রাখতে পারবো। 

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এ নতুনদের তাঁদের উদ্দেশ্য আপনার উপদেশ কি?

অবশ্যই স্কিল অর্জন করে এবং সঠিক গাইড লাইন ফলো করে আসবেন তাহলে আপনাকে হতাশ হতে হবে না। 

4 Comments

Leave a Reply