জন্ম নিবন্ধন

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই ও ফরম ডাউনলোড পদ্ধতি

ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে বর্তমান সরকারের যতগুলো পদক্ষেপ রয়েছে তারমধ্যে অন্যতম প্রশংসনীয় একটি পদক্ষেপ হলো দেশের প্রতিটি নাগরিকের জন্ম নিবন্ধন  ডিজিটালাইজড (Digitalized) করা। অর্থাৎ পূর্বের হাতে লেখা জন্ম সনদকে কম্পিউটারাইজড (computerised) করা। 

যার প্রেক্ষাপটে বর্তমানে দেশের সিংহভাগ নাগরিকের জন্ম নিবন্ধন কম্পিউটারাইজড করা রয়েছে। ফলে সেসব জন্ম সনদের তথ্য অনলাইনে সার্চ করলেই পাওয়া যাচ্ছে এবং প্রয়োজনে সংশোধন করা যাচ্ছে।

বর্তমানে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন প্রয়োজনে একজন ব্যক্তির জন্ম নিবন্ধন বা জন্ম সনদ অনলাইনে অনুসন্ধান করার দরকার পরে। তবে যেকোন ওয়েব ব্রাউজার (Google Chrome, Mozilla Firefox, Safari, Opera etc.) এর সহায়তায় খুব সহজেই জন্ম নিবন্ধন অনলাইন চেক করা সম্ভব। 

কিন্তু দুঃখজনকভাবে অজ্ঞতার কারণে এই সহজ কাজটির জন্য আমাদের সময়, শ্রম ও অর্থের যেমন অপচয় হয় তেমনি হয়রানিরও কোন অন্ত থাকে না। তাই আমরা আমাদের আজকের আর্টিকেলটি সাজিয়েছি জন্ম সনদ অনলাইন যাচাইয়ের সহজ কিছু নিয়ম নিয়ে।

এছাড়াও আপনি যদি জন্ম নিবন্ধন খালি ফরম ডাউনলোড এর নিয়ম এবং এ সংক্রান্ত অন্যান্য তথ্যাদি জানতে চান তাহলে আপনাকে আমাদের এই পোস্টের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ধৈর্য নিয়ে খুব মনোযোগ সহকারে পড়তে হবে। 

তাহলে চলুন আর কথা না বাড়িয়ে জেনে নেই অনলাইন জন্ম নিবন্ধন চেক এবং ফরম ডাউনলোডের বিস্তারিত।

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন যাচাই 

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন যাচাই বা online birth certificate check করা এখন খুবই সহজ। মোবাইল, ল্যাপটপ, কিংবা কম্পিউটারে ইন্টারনেট সংযোগের মাধ্যমে এবং যেকোন ব্রাউজারের সহায়তায় Online bris ওয়েবসাইটটি ভিজিটের মাধ্যমে যে কারোর জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে যাচাই করতে পারবেন। 

অনলাইনে একজন ব্যক্তির জন্ম সনদ চেক করার জন্য মাত্র দুইটি বিষয় জানা প্রয়োজন। সেগুলো হলো:

১. ব্যক্তির জন্ম সনদের রেজিসেট্রশন নাম্বার। একে জন্ম নিবন্ধন নাম্বারও বলা হয়ে থাকে।

২. ব্যক্তির জন্ম তারিখ। 

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে নিম্নোক্ত ধাপগুলো অনুসরণ করতে পারেন।

ধাপ-১.  সর্বপ্রথম গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রদত্ত জন্ম নিবন্ধন সনদ অনলাইন চেকিং ওয়েবসাইট Online BRIS সাইটটিতে যেকোন ওয়েব ব্রাউজার থেকে ভিজিট করতে হবে। বাংলাদেশ সরকারের Online BRIS ওয়েবসাইটটি-তে ভিজিটের জন্য এই লিংকে প্রবেশ করুন। 

ধাপ-২. Online bris check live ওয়েবসাইটে প্রবেশের পর নিচের ছবির মতো একটি পেজ দেখতে পাবেন। যেখানে কিছু খালি ঘর দেওয়া রয়েছে। এখন আপনাকে এই খালি ঘরগুলো ধাপে ধাপে যথোপযুক্ত প্রক্রিয়ায় পূরণ করতে হবে।

ধাপ-৩. এখন উপর থেকে প্রথম খালি ঘরটিতে Birth Registration Number প্রদান করুন। এখানে বার্থ রেজিস্ট্রেশন নাম্বার মানে হলো আপনি যেই জন্ম নিবন্ধনটির তথ্য অনলাইনে অনুসন্ধান করবেন সেই জন্ম সনদের জন্ম নিবন্ধন নাম্বার। 

বিভিন্ন দেশের জন্ম নিবন্ধনে এই নাম্বারটির ডিজিট সংখ্যা বিভিন্ন রকম হয়ে থাকে। তবে বাংলাদেশ সরকার প্রদত্ত জন্ম নিবন্ধন নাম্বারের ডিজিট সংখ্যা ১৭। সুতরাং আপনার জন্ম সনদে থাকা ১৭ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নাম্বারটি প্রথম খালি ঘরটিতে সঠিকভাবে টাইপ করে দিন। 

ধাপ-৪. এবার পরবর্তী ধাপে অর্থাৎ উপর থেকে দ্বিতীয় খালি ঘরটিতে ব্যক্তির Date of Birth বা জন্ম তারিখ প্রদান করুন। এখানে ব্যক্তির জন্ম তারিখ YYYY-MM-DD বা বছর-মাস-দিন এই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে পূরণ করতে হবে। 

সুতরাং কারো জন্ম তারিখ যদি ১৯শে ডিসেম্বর ১৯৯৫ হয় তাহলে খালি ঘরে তার জন্ম তারিখটি হবে এরকম- ১৯৯৫-১২-১৯। 

ধাপ-৫. উল্লিখিত দুটি ধাপ সঠিকভাবে পূরণ হয়ে গেলে সার্চ (Search) লেখা বাটনে ক্লিক করুন। 

ধাপ-৬. এ পর্যায়ে সার্চ (Search) বাটনে ক্লিক করার সাথে সাথে ব্যক্তির অনলাইন ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধনে থাকা সকল তথ্য কম্পিউটার স্ক্রিনে চলে আসবে। এখন সেখানে থেকে প্রয়োজনীয় সকল তথ্যের সত্যতা যাচাই এবং অনুসন্ধান করে নিতে পারবেন এবং প্রয়োজনে সংশোধন করতে পারবেন।

ধাপ-৭. কিন্তু সার্চ (Search) বাটনে ক্লিক করার পরেও যদি কোন তথ্য প্রদর্শিত না হয়ে বরং Matching Birth Records Not Found লেখা সম্বলিত একটি টেক্সট স্ক্রিনে প্রদর্শিত হয় তাহলে বুঝবেন আপনার প্রদত্ত তথ্য সমূহের কোথাও ভুল রয়েছে। 

অর্থাৎ জন্ম নিবন্ধন নাম্বার এবং জন্ম তারিখ এই দুটি তথ্যের কোথাও না কোথাও ভুল রয়েছে। তাই পুনরায় সেই তথ্যগুলো চেক করুন এবং আবার চেষ্টা করুন। যদি প্রয়োজনীয় ডেটা সমূহ সঠিকভাবে প্রদান করা হয়ে থাকে তবে অবশ্যই জন্ম নিবন্ধনের তথ্যাবলি আপনি দেখতে পাবেন।  

কিন্তু এরপরেও যদি Matching Birth Records Not Found লেখাটি পুনরায় চলে আসে তাহলে বুঝতে হবে যে, ঐ জন্ম নিবন্ধন সনদের তথ্য এখনও কম্পিউটারাইজড করা হয়নি। যে কারণে বারবার অনলাইন সার্চ করেও আপনি সেই তথ্যগুলো খুঁজে পাচ্ছেন না।

এভাবে উপরোক্ত দিকনির্দেশনা সমূহ অনুসরণ করার মাধ্যমে যেকোন বাংলাদেশি নাগরিকের জন্ম সনদের তথ্য অনলাইন যাচাই বা জন্ম নিবন্ধন পত্রের তথ্যের সত্যতা অনুসন্ধান করতে পারবেন। 

জন্ম নিবন্ধন খালি ফরম ডাউনলোড

অনলাইন থেকে জন্ম নিবন্ধন খালি ফরম ডাউনলোড করা এখন খুবই সহজ। প্রথমবার যখন কোন ব্যক্তির জন্ম সনদ তৈরি করা হয় বা বের করা হয় তখন সর্বপ্রথম একটি জন্ম নিবন্ধন খালি ফরম নির্দেশিত তথ্যাবলি দিয়ে পূরণ করতে হয় এবং সেই ফরম পরবর্তীতে নির্ধারিত কর্তৃপক্ষের নিকট প্রদান করার মাধ্যমে এর মূল কার্যক্রম শুরু করা হয়। 

জন্ম সনদের এই খালি ফরমটি কে অনেকে জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম (Birth Certificate Application Form) বলেও জেনে থাকেন। এই আবেদন ফরমটির মাধ্যমে যে কেউ খুব সহজেই নতুন জন্ম সনদের জন্য আবেদন করতে পারেন। 

এই আবেদন ফরমটি বাংলাদেশ সরকারের সকল সরকারি ফরমের যে অফিসিয়াল সাইট রয়েছে (www.form.gov.bd) সেখানে দেওয়া আছে। সেখান থেকে আবেদন পত্রের পিডিএফ ফাইলটি যেকোন সময় ডাউনলোড করা যায় এবং ব্যবহার করা যায়।  

অনলাইন থেকে সরাসরি জন্ম নিবন্ধন আবেদন ফরম ডাউনলোড করার জন্য নিচের লিংকগুোলোর যেকোন একটি লিংকে মাত্র একটি সিঙ্গেল ক্লিক করুন। 

এই লিংক দুটির মধ্যে যেকোন একটি লিংক থেকে নতুন জন্ম সনদের আবেদন পত্রের পিডিএফ (pdf) ফরমেট ডাউনলোড করে নিতে পারবেন এবং প্রয়োজন অনুযায়ী প্রিন্ট করার মাধ্যমে সেটির মুদ্রিত কপি বের করে কাজে লাগাতে পারবেন। 

এরপরেও যদি কারো এসব লিংক থেকে আবেদন ফরম ডাউনলোড করতে অসুবিধা হয়ে থাকে তবে নিচে দেওয়া আবেদন পত্রের ইমেজটি সরাসরি ডাউনলোড করে নিতে পারেন এবং যেকোন সময় এই ছবিটি প্রিন্ট আউট করে এর মুদ্রিত কপি বের করে নিতে পারবেন ও ব্যবহার করতে পারবেন। 

জন্ম নিবন্ধন খালি ফরম 

জন্ম নিবন্ধন এর এই আবেদন ফরমটি প্রিন্ট করে এর মুদ্রিত কপি সঠিকভাবে পূরণ করে অফ লাইনে যেমন ফরম জমা দিয়ে আবেদন পাঠাতে পারেন তেমনি অনলাইনে স্মার্টফোন কিংবা কম্পিউটারে এই ফরম পূরণ করার পরে তা ঘরে বসেই জমা দিতে পারবেন। 

আশা করি আমাদের এই পোস্টের সাহায্যে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার নিয়ম সম্পর্কে ভালোভাবে জানতে পেরেছেন। এছাড়া জন্ম নিবন্ধন খালি ফরম ডাউনলোড করা নিয়েও আপনার মনে আর কোন প্রশ্ন থাকবে না। 

http:/everify.bdris.gov.bd/ ওয়েবসাইট থেকে এখন আশা করি নিজে নিজেই online birth certificate check করতে পারবেন। তারপরও যদি আপনাদের কোনো কিছু বুঝতে অসুবিধা হয় কিংবা কোন জিজ্ঞাসা থেকে থাকে তাহলে তা কমেন্ট বক্সে জানানোর অনুরোধ রইল। যথাযথ উত্তর প্রদানের চেষ্টা করব।

Share

Leave a Reply