ব্যাকলিংক তৈরি করার কয়েকটি ওয়েবসাইটের তালিকা

ব্যাকলিংক (Backlink) শব্দটি এসইও জগতে অনেক পরিচিত একটি শব্দ। ব্যাকলিংকের সহজ সংজ্ঞা দিতে হলে, ব্যাকলিংক হচ্ছে একটি এক্সটারনাল লিংক যা অন্য একটি ওয়েবসাইট থেকে আপনার সাইট পেয়ে থাকে। অর্থাৎ আরো সহজভাবে বলতে হলে, যখন একটি ওয়েবসাইট আপনার সাইটকে একটি লিংক দেয় তখন তাকে ব্যাকলিংক বলা হয়। আজকে এই লেখায় আমরা আলোচনা করব ব্যাকলিংক তৈরীর জন্য সহায়ক কয়েকটি ওয়েবসাইটের তালিকা নিয়ে।

বলে রাখা ভালো, ব্যাকলিংক পাওয়ার সুবিধা হলো, যখন আপনার ওয়েবসাইট বাইরের বিভিন্ন সাইট থেকে এমন ব্যাকলিংক পাবে, তখন সার্চ ইঞ্জিনগুলো আপনার সাইটকে বেশি গুরুত্ব দেবে। ফলে বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিনে আপনার কনটেন্টের অবস্থান উন্নতি হতে থাকবে। ​আর যখন আপনি সার্চ ইঞ্জিনে ভালো অবস্থানে চলে আসবেন, তখন আপনার সাইটর অর্গানিক ভিজিটর সংখ্যা বহুগুণে বাড়বে।

ব্যাকলিংক তৈরীর করার কয়েকটি ওয়েবসাইট:

MyBlogU

ওয়েবসাইটের ঠিকানা: https://myblogu.com

MyblogU প্ল্যাটফর্মটি মূলত লেখক, ব্লগার, সাংবাদিকদের জন্য সবচেয়ে বেশি উপকারী। এছাড়া যারা নিজস্ব ওয়েবসাইটের কন্টেন্টগুলোর মান বাড়ানোর জন্য নির্দিষ্ট বিষয়ের বিশেষজ্ঞদের মন্তব্যের খোঁজ করেন তাদের ক্ষেত্রেও এটি অনেক উপকারী একটি সাইট। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের লক্ষাধিক লেখক ও ওয়েবসাইটের মালিকেরা myblogU ব্যবহার করে followed ব্যাকলিংক তৈরী করছেন।

MyblogU সাইটটি ব্যবহার করে মোট ৪ টি উপায়ে ব্যাকলিংক তৈরী করা যায়। সেগুলো হল-

  • Brainstorms প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহন করে।
  • ইন্টারভিউ ও সার্ভেগুলোতে প্রশ্নের উত্তর দিয়ে।
  • বিভিন্ন মিডিয়া ফাইল, যেমন- ছবি, ভিডিও ইত্যাদি আপলোডের মাধ্যমে।
  • সাইট থেকে দেওয়া নির্দিষ্ট আর্টিকেল সম্পাদন করে।

আমার নিজস্ব অভিজ্ঞতায় মনে হয়েছে, ইন্টারভিউ ও সার্ভের উত্তর দেওয়ার মাধ্যমে ব্যাকলিংক অর্জন করা তুলনামূলকভাবে সহজ। তবে Brainstorms প্রতিযোগিতাটিও খুবই মজার। এছাড়া MyblogU সাইটটি মূলত একটি ব্যাকলিংক তৈরীর সাইট হলেও সাইটটিতে কাজের মাধ্যমে আপনি একটি শক্তিশালী নেটওয়ার্কিং গড়ে তুলতে পারবেন। এই নেটওয়ার্কিং আপনাকে ইন্টারনেটের জগতে আরেক ধাপ এগিয়ে দিতে পারে।

HARO

ওয়েবসাইটের ঠিকানা: https://www.helpareporter.com

ব্যাকলিংক তৈরীর আরো একটি জনপ্রিয় সাইট হচ্ছে HARO (Help A Reporter Out)। এই সাইটটিকে অনেকে বিশ্বের সেরা সাংবাদিকদের মিলনমেলা বলে অভিহিত করে থাকে। তাই এখান থেকে প্রাপ্ত ব্যাকলিংকগুলো আপনার সাইটের গুগল র‍্যাংকিং বাড়াতে অনেক বেশি পরিমাণে সাহায্য করতে পারে। তবে HARO ওয়েবসাইট থেকে ব্যাকলিংক তৈরী করার জন্য সাইটটিতে যথেষ্ট পরিমাণে সময় ব্যয় করতে হয়। এই সাইটে কম সময় কাজ করে খুব ভাল রকমের ব্যাকলিংক পাওয়া সম্ভব নয়। আমার পরামর্শ হচ্ছে, আপনারা একটি টিম তৈরী করে  HARO ওয়েসাইটে কাজ করতে পারেন। 

HARO ওয়েবসাইট থেকে ব্যাকলিংক পেতে চাইলে কিছু পদ্ধতি রয়েছে। যেমন-

  • প্রথমে ইমেইল একাউন্টের মাধ্যমে সাইন আপ করতে হবে। 
  • Daily Emails সার্ভিসটি অন করে দিতে হবে। 
  • এরপর প্রত্যেকদিন আপনার ইমেইল এড্রেসের ইনবক্সে HARO ওয়েব থেকে বিভিন্ন Query সহ ইমেইল আসবে। আপনার পছন্দের Query তে ক্লিক করে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারবেন।
  • আপনার কাজটি তাদের পছন্দ হলে বিভিন্ন ওয়েব ও জার্নালে আপনার লেখা তারা প্রকাশ করবে এবং আপনি একটি followed ব্যাকলিংক পেয়ে যাবেন।

আমার পরামর্শ হচ্ছে, কম প্রচলিত প্রিন্ট ম্যাগাজিনগুলোতে কাজ করার চেষ্টা করুন। এতে খুব সহজেই ব্যাকলিংক পাওয়া সম্ভব।

SourceBottle

ওয়েবসাইটের ঠিকানা: https://www.sourcebottle.com

SourceBottle সাইটতি মূলত HARO ওয়েবসাইটের মতই সাংবাদিকদের একটি বিখ্যাত প্ল্যাটফর্ম। এই ওয়েবসাইটে আপনি বিভিন্ন লেখক, সাংবাদিক ও ব্লগারদের কন্টেন্টগুলোতে Respond করার মাধ্যমে ব্যাকলিংক পেয়ে যেতে পারেন। SourceBottle ওয়েবসাইটটির সূচনা হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের লেখক ও ব্লগারদের যুক্ত করার মাধ্যমে৷ পরবর্তীতে যুক্তরাস্ট্র ও কানাডার ব্লগারদেরকেও এখানে যুক্ত করা হয়েছে। তবে আপনি বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে বসেই এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ব্যাকলিংক পেয়ে যেতে পারেন। সেক্ষেত্রে আপনাকে প্রথমে তাদের তালিকা থেকে পছন্দমত দেশ নির্বাচন করে নিতে হবে। পরবর্তীতে Query Form গুলোতে আপনি যে ভিন্ন দেশের নাগরিক সেটি উল্লেখ করতে হবে। 

HARO ওয়েবসাইটের মতই এখানে ইমেইলের মাধ্যমে সাইন আপ করতে হবে। এরপর ইনবক্সে আসা Query গুলোতে যোগাযোগের মাধ্যমে ব্যাকলিংক পেয়ে যেতে পারেন।এছাড়াও sourceBottle এর ওয়েবসাইটে ঢুকেও সাইন আপ করা সম্ভব। সাইন আপ করার পর মেনুবারের উপরের অংশে Be a source অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে। এরপর browse free publicity opportunities by topic অপশনটি নির্বাচন করলেই বিভিন্ন Query পেয়ে যাবেন। এরপর পছন্দমত Query তে কাজ করার মাধ্যমেই একটি মূল্যবান ব্যাকলিংক পেয়ে যেতে পারেন।

Business 2 Community (B2C)

ওয়েবসাইটের ঠিকানা: https://www.business2community.com

B2C মূলত ব্যবসা-বাণিজ্য সম্পর্কিত কন্টেন্ট প্রকাশের জন্য একটি বিখ্যাত অনলাইন কমিউনিটি। B2C প্ল্যাটফর্মে ব্যবসা সম্পর্কিত বিভিন্ন লেখা, সাক্ষাৎকার কেস স্টাডি ও শ্বেতপত্র প্রকাশ করে থাকে৷ এই সাইটটিতে আপনি বিভিন্ন কন্টেন্ট লেখার মাধ্যমে ব্যাকলিংক পেয়ে যেতে পারেন। এছাড়া তাদের এডভার্টাইজিং প্রোগ্রামের মাধ্যমে আপনি নিজস্ব ব্লগের বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন। আমার কাছে মনে হয়েছে, B2C সাইটটির মাধ্যমে ব্যাকলিংক পাওয়ার সবচেয়ে ভাল পদ্ধতি হচ্ছে নিয়মিত বিভিন্ন পোস্ট লেখা।  

তবে পোস্ট সাবমিট করার আগে অবশ্যই ভালভাবে Contributors Guidelines পড়ে নেওয়া প্রয়োজন। কারন B2C সাইটটি কন্টেন্টের CTAs সহ বিভিন্ন গাইডলাইন খুব শক্তভাবে অনুসরণ করে থাকে৷ এছাড়াও আপনার ব্লগ প্রকাশের জন্যও B2C প্ল্যাটফর্মকে বেছে নিতে পারেন। তবে এখানেও অবশ্যই তাদের সাবমিশনের নির্দেশনাগুলো মেনে চলবেন। এসব সাবধানতা অনুসরণ করলে B2C থেকে আপনি খুব ভাল কিছু ব্যাকলিংক পেয়ে যেতে পারেন।

Bizsugar

ওয়েবসাইটের ঠিকানা: https://share.bizsugar.com

ব্যাকলিংক পাওয়ার জন্য Bizsugar ওয়েবসাইটের অনেক খ্যাতি রয়েছে৷ এই সাইটটি মূলত ক্ষুদ্র ব্যবসা বাণিজ্য সম্পর্কিত বিভিন্ন কন্টেন্ট ও ব্লগ প্রকাশ করে থাকে। এই কমিউনিটি মূলত একটি সীমিত আকারের কমিউনিটি। এখানে শুধুমাত্র উচু মানের কন্টেন্টগুলোই প্রকাশ পেয়ে থাকে। আপনার যদি নিজস্ব কোনো ক্ষুদ্র ব্যবসা বা ছোট কোনো প্রতিষ্ঠান থাকে তবে এই কমিউনিটে যোগদানের মাধ্যমে আপনি নানাভাবে উপকৃত হতে পারেন। 

আপনি যদি ক্ষুদ্র ব্যবসা- বাণিজ্য সম্পর্কিত আর্টিকেল ও ব্লগ লিখে থাকেন তবে BizSugar ওয়েবসাইটে সাবমিট করতে পারবেন। এখান থেকে প্রাপ্ত ব্যাকলিংকগুলোও যথেষ্ট কার্যকরী বিধায় প্রাপ্ত ব্যাকলিংকের মাধ্যমে আপনার সাইটের র‍্যাংকিং তরতর করে বেড়ে যাবে।  তাছাড়া বিশ্বজুড়ে আপনার নিজস্ব পেশায় কাজ করা বন্ধু-সহকর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগের সুযোগ তো থাকছেই।

GrowthHackers

ওয়েবসাইটের ঠিকানা: https://growthhackers.com

এই সাইটটি মূলত ব্যবসা বাণিজ্যের প্রসার সহজে কিভাবে করা সম্ভব সেই বিষয় সম্পর্কিত একটি প্ল্যাটফর্ম।  সারাবিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ এই প্ল্যাটফর্মে বসে তাদের বিভিন্ন আইডিয়া শেয়ার করে থাকে। এখানে বিভিন্ন উচু মানের নিজস্ব কন্টেন্ট প্রকাশ করা হয়ে থাকে। সেই কন্টেন্টগুলোতে ভাল-মন্দ আলোচনার মাধ্যমেই মূলত বিভিন্ন আইডিয়া শেয়ার হয়৷ আলোচনার তুঙ্গে থাকা কন্টেন্টের লেখকেরা এই সাইট থেকে বিনামূল্যে  ব্যাকলিংক পেতে পারেন৷ 

GrowthHacker প্ল্যাটফর্মটি মূলত একটি আলোচনামূলক ওয়েবসাইট৷ তাই এখানে প্রবেশের পর আপনাকে সপ্তাহের একটা নির্দিষ্ট পরিমাণে সময় ব্যয় করতে হবে। বিভিন্ন কন্টেন্টে গিয়ে নিজস্ব ভাবনা কমেন্টের মাধ্যমে তুলে ধরতে হবে। এভাবে আপনি বিভিন্ন লোকজনের সাথে পরিচিত হওয়ার সুযোগ পাবেন।

GrowthHacker প্ল্যাটফর্ম থেকে ব্যাকলিংক তৈরী করতে চাইলে কিছু পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে। প্রথমত, সাইটে ঢুকে সাইন আপ করতে হবে। এর নিজস্ব কন্টেন্ট প্রকাশ করতে হবে। তবে আমার পরামর্শ হচ্ছে, নিজস্ব কন্টেন্ট প্রকাশের পূর্বে অন্যদের কন্টেন্টে মতামত প্রকাশ করার অভ্যাস করুন।  এতে সবার সাথে পরিচিত বাড়বে এবং নিজের কন্টেন্টে অনেক বেশি আলোচক আসবে। ফলে খুব সহজেই আপনি ব্যাকলিংক পেয়ে যাবেন। যত বেশি মানুষ আপনার কন্টেন্ট নিয়ে আলোচনা করবে আপনি তত বেশি ব্যাকলিংক পাবেন।

 Pen.io

ওয়েবসাইটের ঠিকানা: http://pen.io

Pen.io হচ্ছে নিজস্ব ওয়েবসাইট প্রকাশের জন্য একটি সহজ ও সাধারন প্ল্যাটফর্ম। এই সাইটটিতে সাইন আপের মাধ্যমে আপনি কোনো কন্টেন্টবিহীন এক পেজের ওয়েবসাইটও তৈরী করতে পারবেন। এই সাইটটিতে ইমেইল আইডি ও পাসওয়ার্ড ছাড়া বাকী অন্য কোনো তথ্যেরও দরকার হয়না। ফলে সহজেই এই সাইটে নিজস্ব ব্যাকলিংকগুলো প্রকাশ করা যায়। তাছাড়া আপনার সাইটের বিভিন্ন GiveAway প্রোগ্রাম, কন্টেস্ট ইত্যাদির ঘোষণাও এই সাইটের মাধ্যমে অতি সহজেই প্রকাশ করা যায়। তাই ব্যাকলিংক তৈরী করার জন্য pen.io হতে পারে আপনার জন্য সেরা একটি সমাধান। 

তবে, pen.io সাইটটির একটি বড় সমস্যা রয়েছে। এই সাইটে HTTP তে SSL সার্টিফিকেট ব্যবহার করা হয়নি। ফলে গুগল এটিকে নিরাপদ মনে করেনা। তাই আপনার প্রত্যাশামত SEO Ranking আপনি না-ও পেতে পারেন।

DeviantArt

ওয়েবসাইটের ঠিকানা: https://www.deviantart.com

ব্যাকলিংক তৈরীর জন্য DevianArt একটি নির্ভর‍যোগ্য ওয়েবসাইট। বেশকিছুদিন যাবত এই সাইটটি ব্যবহারের অভিজ্ঞতায় বলতে পারি  সহজে বেশি ট্রাফিক পেতে হলে DevianArt এর বিকল্প নেই। তবে ২০১১ সালের পর DevianArt বাইরের লিংকগুলোর (External Link) ক্ষেত্রে তাদের সরাসরি ব্যাকলিংকের সুবিধা বাতিল করে দিয়েছে। বাইরের সাইটগুলোর এখন সাধারনত https://www.deviantart.com/users/outgoing?https://example.com পদ্ধতিতে পরিচালিত হয়। 

এক্ষেত্রে বাইরের সাইটে ভিজিট করার ব্যাপারে ভিজিটরকে পূর্বেই সতর্ক করা হয়। ফলে আপনার সাইটের SEO বৃদ্ধির ক্ষেত্রে এই সাইটটি এখন পুরোপুরি সাহায্য করতে পারবেনা। তবে এই সাইটে ব্যাকলিংক ব্যবহার করে আপনি মূল্যবান কিছু ভিজিটর বাড়াতে পারেন। ফলে, আপনার সাইটের ট্রাফিক বহুগুণে বৃদ্ধি পাবে।

Tumblr

ওয়েবসাইটের ঠিকানা: https://www.tumblr.com

Tumblr প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমেও খুব ভাল কিছু ব্যাকলিংক পাওয়া সম্ভব। তবে Devian Art এর মতই ২০১৬ সালের পর থেকে বাইরের সাইটের লিংকগুলোর ক্ষেত্রে এখানে Redirect পদ্ধতি অনুসরণ করা হচ্ছে। তবে এরপরেও Nonfollow ব্যাকলিংক তৈরীর ক্ষেত্রে এটির চাহিদা এখনো আকাশচুম্বী। তাছাড়া Tumblr প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে বেশ বড় একটি কমিউনিটির সাথে পরিচিত হওয়ার সুযোগ রয়েছে৷ সুতরাং, ওয়েবসাইটের ট্রাফিক বাড়ানোর জন্য আপনি Tumblr সাইটে ব্যাকলিংক তৈরী করতে পারেন।

Medium

ওয়েবসাইটের ঠিকানা: https://medium.com

আমরা সবাই কমবেশি Medium প্ল্যাটফর্মটি সম্পর্কে জানি। এই প্ল্যাটফর্মটি লেখালেখির জন্য এতটা জনপ্রিয় যে Linkedin, Twitter এবং Google থেকেও এই কনটেন্ট প্ল্যাটফর্মটিতে প্রবেশ করা যায়।

Medium একটি দুর্দান্ত প্ল্যাটফর্ম যেখানে আপনি যেকোনো বিষয়ে নতুন কন্টেন্ট লিখতে পারেন, বিদ্যমান কন্টেন্টগুলোর সিন্ডিকেট করতে পারেন বা আলোচনার জন্য পোস্ট করতে পারেন। তাছাড়া সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে এখানে আপনার প্রকাশিত যে কোনও কন্টেন্টে ব্যাকলিঙ্ক গুলো যুক্ত করতে পারবেন।

যদি আপনার কন্টেন্টের বিষয়বস্তু ভাল হয় তবে এই কমিউনিটির পাঠকেরা আপনার ব্যাকলিংকে ক্লিক করতে উৎসাহী হবে। ফলশ্রুতিতে আপনি সহজেই আপনার ওয়েবসাইটের জন্য মূলবান কিছু ভিজিটর পাবেন। যা আপনার সাইটের ট্রাফিক বৃদ্ধিতে বড় ভূমিকা রাখবে।

Quora

ওয়েবসাইটের ঠিকানা: https://quora.com

Quora হচ্ছে প্রশ্নোত্তরের জন্য বিশ্বব্যাপী বিখ্যাত একটি উন্মুক্ত প্ল্যাটফর্ম। এই প্ল্যাটফর্মে বিশ্বের সকল প্রান্তের মানুষ তাদের যেকোনো জিজ্ঞাসা সম্পর্কে প্রশ্ন করতে পারে। উত্তরদাতারাও বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে উন্মুক্ত পদ্ধতিতে প্রশ্নগুলোর উত্তর প্রদান করতে পারে। এই সাইটটিতে সময় দেওয়ার মাধ্যমে আপনি সাইটটির একজন মূল্যবান রিসোর্সদাতা হিসেবে পরিচিতি পেতে পারেন। 

এই পরিচিতির মাধ্যমে আপনার উত্তরগুলোতে আপনি ব্যাকলিংকের ব্যবহার করতে পারেন। নির্ভরযোগ্য  রিসোর্সদাতা হলে, আপনার প্রদানকৃত ব্যাকলিংকে মানুষ প্রবেশ করবে। ফলে আপনার নিজস্ব সাইটের ট্রাফিক বহুগুণে বেড়ে যাবে। সুতরাং ভাল কিছু ব্যাকলিংক পাওয়ার জন্য Quora প্ল্যাটফর্মে হয়ে উঠুন একজন প্রো-রিসোর্সদাতা।

তো, এই ছিল ব্যাকলিংক তৈরীর কিছু ওয়েবসাইটের খোঁজখবর নিয়ে আমাদের বিস্তারিত আলোচনা। আশা করি এই পোস্টটি পড়ে আপনারা সহজেই ব্যাকলিংক তৈরীর সাইটগুলো খুঁজে পাবেন। আর দেরি কেন? সাইটগুলোতে ভিজিট করুন আর নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে কাজ করে আপনার সাইটের জন্য অর্জন করুন ব্যাকলিংক।

Share

Leave a Reply